icon

খেয়াং রূপকথা: ঙুলুই বেঙসেন চঃ খুই (লাল গাল মাছের গল্প)

Jumjournal

Last updated Jan 20th, 2020 icon 306

অনেক অনেক দিন আগের কথা। নিঃসন্তান বুড়ো-বুড়ীর এক পরিবার ছিল। তারা একদিন দুপুরে কাজের অবসর সময়ে মাছ ধরতে গিয়েছিল ছড়াতে। সেখানে তারা একটি কুয়া দেখতে পেল।

কুয়ার মধ্যখানে একটি পাথর ছিল। সেই কুয়াতে তারা মাছ ধরতে লাগল এবং প্রচুর মাছ পেল। বুড়ো কুয়ার মধ্যখানের পাথরটি সরিয়ে দিয়ে একটি লাল গাল মাছ (ঙলুই বেঙসেন) পেয়েছিল। বুড়ো-বুড়ী ঐ মাছটিকে দেখে অবাক হয়ে গেল।

বুড়োটা কিন্তু সমস্ত ভাষা জানত, পাথর, মাটি, গাছ, মাছ এবং অন্যান্য জীবজন্তুর ভাষাসহ।

বুড়ো ঐ লাল গাল মাছকে জিজ্ঞেস করল, “ও মাছ, তোমার গাল কেন লাল?” জবাবে ঐ মাছটি বলল, “অনিচ্ছাকৃতভাবে আমার গাল লাল হয়েছে।

পাথরটি আমাকে চাপা দেওয়াই এর কারণ। বুড়ো পাথরকে জিজ্ঞেস করল, “পাথর, তুমি কেন চাপা দিয়েছ?” পাথরটি বলল, “ইচ্ছাকৃতভাবে আমি চাপা দেয়নি।

গাছের ডাল আমার উপরে পড়ে আমাকে চাপা দেওয়াই এর কারণ”। বুড়ো গাছের ডাল (টিংবাকচঃ)-কে জিজ্ঞেস করল, “তুমি কেন উপর থেকে পড়ে পাথরকে চাপা দিয়েছ”?

জবাবে গাছের ডালটি বলল, “ইচ্ছাকৃতভাবে আমি উপর থেকে পড়িনি। বানর আমাকে নাড়া দেওয়াই এর কারণ”। বুড়ো তখন বানরকে জিজ্ঞেস করল,“বানর, কেন তুমি গাছের ডালকে নাড়া দিয়েছ?”

উত্তরে বানরটি বলল, “ইচ্ছাকৃতভাবে আমি গাছের ডালটিকে নাড়া দেয়নি। কুকুর (উইচেনচঃ)-টি ঘেও ঘেও করে ডাক দেওয়ার কারণে ভয়ে আমি গাছের ডালটি নাড়া দিয়েছি।

বুড়ো এবার কুকুরটিকে জিজ্ঞেস করল, “কেন তুমি ঘেও ঘেও করে ডাক দিয়ে বানরকে তাড়া দিয়েছ?”

কুকুরটি বলল, “কুঁজো বুড়ো-বুড়ী ( নুলা-ম্রঃ পঃ) আমাকে বানরটি তাড়াতে বলেছিল, তাই আমিও ঘেও ঘেও করে বানরটিকে তাড়িয়ে দিয়েছি।”

বুড়ো তখন ঐ কুঁজো বুড়ো-বুড়ীকে জিজ্ঞেস করল, “কেন তোমরা কুকুর দিয়ে বানরটিকে তাড়িয়ে দিয়েছ?

জবাবে কুঁজো বুড়ো-বুড়ী বলল, “আমরা এমনি বানরকে কুকুর দিয়ে তাড়াইনি। কারণ বানর আমাদের জুমে গিয়ে জুমের মারপা, মিষ্টি কুমড়া, জুম কুমড়া সব খেয়ে সর্বনাশ করে ফেলেছে”। তখন বুড়ো বলল :”একজনের দোষের কারণে অনেকজনকে ভোগান্তি পোহাতে হয়।”


লেখক: চিং সা উ খেয়াং

জুমজার্নালে প্রকাশিত লেখাসমূহে তথ্যমূলক ভুল-ভ্রান্তি থেকে যেতে পারে অথবা যেকোন লেখার সাথে আপনার ভিন্নমত থাকতে পারে। আপনার মতামত এবং সঠিক তথ্য দিয়ে আপনিও লিখুন অথবা লেখা পাঠান। লেখা পাঠাতে কিংবা যেকোন ধরনের প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন - jumjournal@gmail.com এই ঠিকানায়।

আরও কিছু লেখা

Jumjournal

Administrator

Follow Jumjournal

Leave a Reply