icon

সাঁওতাল রুপকথা: ভাইয়ের জন্য উপহার

Jumjournal

Last updated Apr 29th, 2020 icon 233

একদিন এক কৃষক ধান ক্ষেতে কাজ করছিল। হঠাৎ সে তার নিড়ানি খুঁজে পাচ্ছিল না।

এদিক সেদিক অনেক খোঁজ করল, কিন্তু কৃষক তার নিড়ানিটি আর খুঁজে পেল না।

কাজ পাগল লোকটি অস্থির হয়ে চিৎকার করে বলল, আমার নিড়ানিটি যে খুঁজে দিবে তাকে আমার মেয়ে দান করব।

এক অপদেবতা লোকটির এই কাণ্ড দূর থেকে মজা করে দেখছিল। এই অপদেবতার নাম বোঙ্গা।

বোঙ্গা মানুষের রূপ ধরে এসে বলল, সত্যিই এই কাজটি করে দিলে তুমি তোমার মেয়েকে দিবে? কৃষক বলল, হ্যা দিব।

বোঙ্গা তখন নিড়ানিটি দেখিয়ে বলল, ঐ তো তোমার কোমরের মধ্যেই ঝুলানো আছে তোমার সাধের নিড়ানি।

কৃষক অবাক হয়ে গেল। তারপর অপদেবতা বোঙ্গা পুরস্কার চাইল।

কৃষক বলল, এখন নয়, আমার মেয়ে বিকালে নদীতে জল আনতে গেলে নিয়ে যেও। তারপর কৃষক নিজ কাজে মন দেয়।

কৃষকের কথা শুনে বোঙ্গা মানুষ থেকে হিংস্র বাঘের রুপ নিয়ে বনে চলে যায়।

এদিকে মেয়েটির ছোট ভাই বোঙ্গার সঙ্গে বাবার আলোচনা দূর থেকে শুনে ফেলে। কিন্তু সে কাউকে কথাটি বলে না।

কৃষকের মেয়ে যথারীতি প্রতিদিনের মতো বিকালে নদীর ঘাটে জল আনতে রওনা হলো।

ছোট ভাইটি দিদিকে বলল, সেও যাবে নদীর ঘাটে দিদি তাকে বারণ করে বলল, তুমি তোমার কাজে যাও।

ছোট ভাইটি দিদির কথা না শুনে তীর ধনুক নিয়ে দিদির পিছু পিছু গেল। এদিকে বাঘের বেশে বোঙ্গা পথের ধারে উচু গাছের ডালে ওত পেতে বসে রইল।

উদ্দেশ্য কৃষকের মেয়েটি আসলেই তাকে খাবে। কিন্তু কৃষকের ছেলে বাঘটিকে দেখে ফেলে।

সে সঙ্গে সঙ্গে ধনুকে টান দিয়ে তীর ছুড়ে ওত পেতে বসে থাকা বাঘটির দিকে। বাঘের চোখে তীরটি বিদ্ধ হয়।

বাঘ তীব্র যন্ত্রণায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ল। ঐ ঘটনার পর ওখানে অনেক মানুষ জড়ো হলো।

ছেলেটি তখন সমস্ত কাহিনী খুলে বলল। গ্রামবাসী বুদ্ধিমান ছেলেটির প্রশংসা করল। গ্রামবাসী বীরত্বের জন্য ছেলেটিকে একটি গরু উপহার দিল।

সেই থেকে আজও সাঁওতাল সমাজে কোনো মেয়ের বিয়ে হলে বর এবং আত্মীয়রা মেয়ের ভাইয়ের জন্য একটি গরু উপহার পাঠায়।

জুমজার্নালে প্রকাশিত লেখাসমূহে তথ্যমূলক ভুল-ভ্রান্তি থেকে যেতে পারে অথবা যেকোন লেখার সাথে আপনার ভিন্নমত থাকতে পারে। আপনার মতামত এবং সঠিক তথ্য দিয়ে আপনিও লিখুন অথবা লেখা পাঠান। লেখা পাঠাতে কিংবা যেকোন ধরনের প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন - jumjournal@gmail.com এই ঠিকানায়।

আরও কিছু লেখা

Jumjournal

Administrator

Follow Jumjournal

Leave a Reply