icon

ইকুয়েডরের আদিবাসী জাতিগোষ্ঠীর আমাজন অরণ্যে খনিজ সম্পদ আহরণ ব্যবসার বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক জয় লাভ

PriaseChakma

Last updated Mar 30th, 2020 icon 545

“আমাদের অরণ্যই আমাদের জীবন”

তেল ও খনিজ সম্পদ উত্তোলনের বিরুদ্ধে ঐতিহাসিক এক বিজয় শত শত আদিবাসীকে উৎসাহিত করেছে, প্রাকৃতিক সম্পদ আহরণের ব্যবসার বিরুদ্ধে প্রতিরোধের অনুপ্রেরণায় সুদূর আমাজন থেকে কখনো পায়ে হেঁটে, কখনো ক্যানু নৌকায় কখনো বা সড়ক পথে, ওয়াওরানি (Waorani) এবং কোফান (Kofan) আদিবাসী সম্প্রদায়কে সমর্থন দিতে গত সপ্তাহে (২০ ফেব্রুয়ারি,২০২০-এর পূর্বের সপ্তাহে) ইকুয়েডর এর রাজধানী তে শতশত আদিবাসী যোগ দেয়।

ইকুয়েডর এর আমাজনের আদিবাসীদের সাথে সাথে অন্যান্য আদিবাসী জাতিগোষ্ঠী কিচোয়া (Kichwa), সাপারা (Sapara), স্যিইয়ার (Shiwiar) ,স্যুয়ার (Shuar), সিয়েকোপাই (Siekopai), সিয়োনা (Siona) যারা একইভাবে নিজ এলাকায় অস্তিত্বের হুমকির সম্মুখীন, সকলেই ঐক্যবদ্ধ হয়ে কুইতো এর রাস্তায় বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের সামনে সরকারের আমাজন ধ্বংসের বিরুদ্ধে এবং আদালতের নির্দেশ মানতে না পারার ব্যর্থতার নিন্দা জানিয়ে নাচ-গানের মাধ্যমে সংহতি সমাবেশ করে।

ইকোয়াডর এর উচ্চ আদালত, ওয়ায়োরনি এবং কোফান সম্প্রদায়ের সাথে এক বিশেষ সাক্ষাত করে কোফান এর সিনানগো মামলাটি পর্যালোচনার জন্য গ্রহণ করে-যা ইকুয়েডরের আদিবাসীদের কাছে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

এটিই  দেশটির উচ্চ আদালত এর সর্বপ্রথম আদেশ যার মাধ্যমে আদিবাসী জনগোষ্ঠীর সাথে পূর্ববর্তী আলোচনা আর সেইসাথে আত্ননিয়ন্ত্রণ এর অধিকার স্বীকৃতি পায়।

ওয়াওরানি (Waorani) এবং কোফান (Kofan) জাতিগোষ্ঠী ঝুঁকি সম্পর্কে সম্পূর্ণরূপে ওয়াকিবহাল এবং তারা এ ও জানে যে ,ইকুয়েডর এর পাশাপাশি এ অঞ্চলের অন্য সকল অংশেও আদিবাসী সম্প্রদায়ের অধিকার আদায়ের জন্য তাদের এই ঐতিহাসিক বিজয় একটি মূল্যবান সুযোগ ।

বৃহৎ তেল ও খনিজ উত্তোলনের বিরুদ্ধে তাদের সফলতা, উচ্চ আদালত এবং জাতিসংঘ দ্বারা তাদের মামলার স্বীকৃতি প্রাপ্তির পরেও সরকার তার আহরণ/ উত্তোলনের নীতিতেই চলমান।

সাম্প্রতিক ঘোষণায় দেখা যায় , চীন এর বিপুল অঙ্কের ঋণ পরিশোধ এর জন্য আমাজন থেকে তেল ও খনিজ উত্তোলন সম্প্রসারনের পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে, যা বিশ্বের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বনভূমি , আদিবাসীদের আবাসস্থল এবং পৃথিবীর জলবায়ুকে ফেলেছে হুমকির মুখে।

২০১৮ এবং ২০১৯ সালে ওয়াওরানি (Waorani) এবং কোফান (Kofan) জাতিগোষ্ঠী সরকারের বিরুদ্ধে অভূতপূর্ব আইনি লড়াই জেতার মধ্য দিয়ে শত সহস্র আদিম জীববৈচিত্র রক্ষার এবং আমাজনে আদিবাসী অধিকার প্রতিষ্ঠায় গুরুত্বপূর্ণ নজির প্রতিষ্ঠা করে।

সামনের মাসগুলোতে ইকুয়েডর সরকার যেন আদিবাসীদের অধিকার এবং অস্তিত্ব কে মর্যাদা দেয় সেই জোর দাবি তারা জারি রাখবে।


রাজধানী শহর কোয়াইতোর উচ্চ আদালতের সামনে কিচোয়া, সাপারা, স্যইয়ার, সিয়োনা, সিয়েকোপাই, স্যিচিইয়ার সহ ওয়ায়োরানি এবং কোফান জাতিগোষ্ঠীর সমাবেশ ।

আমরাই অরণ্যের কণ্ঠস্বর আমরা দাবি জানাই সরকার যেন আমাদের কথা শোনে এবং সম্মান করে। আমরা প্রতিরোধ চালিয়ে যাব। আদিবাসী জনগোষ্ঠী হিসেবে অস্তিত্ব রক্ষায় আমাদের এই আইনি বিজয় অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। আমাদের প্রাকৃতিক এবং সাংস্কৃতিক অস্তিত্ব রক্ষায় এসব হলো গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার।“

-কোফান তরুন নেতা অ্যালেক্স লুসিতানতে ইকুয়েডরের উচ্চ আদালত এর সামনে সংবাদ সম্মেলনে একটি শক্তিশালী বার্তা প্রদান করেন।

২০১৯ এর নভেম্বরে ইকুয়েডর এর উচ্চ আদালত দেশটির আদিবাসী সম্প্রদায়ের আইনি বিজয় কে জাতীয় আইন এর আওতায় নিয়ে আসার জন্য সিনানগো এর কোফান সম্প্রদায় কে পর্যালোচনার উদ্দেশ্যে বেছে নেয়।


ওয়ায়োরানি এবং কোফান জাতিগোষ্ঠী ঐক্যবদ্ধভাবে তাদের ঐতিহাসিক জয়লাভ উদযাপন এর পাশাপাশি আদিবাসীদের স্বাধীনভাবে সম্মতি প্রদানের ক্ষমতা কে লঙ্ঘন করার মনোভাব এর তীব্র নিন্দা জানিয়ে সমাবেশ করে।

 আমাদের অঞ্চলই আমাদের আবাসস্থল এবং আমরা আমাদের সীমানা অস্তিত্বকে রাষ্ট্র দ্বারা ধ্বংস হতে দেবোনা। ওয়ায়োরানির সম্প্রদায় হিসেবে লড়াই শুধু আমাদের না।  স্যুয়ার , স্যিয়ার, সাপারা সহ অন্যান্য জাতিগোষ্ঠীর ভাইবোনদের সাথে আমরা একই লড়াই ঐক্যবদ্ধ ।আমরা আমাদের অস্তিত্ব ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য লড়াই করছি রাষ্ট্রের অবশ্যই আমাদের কথা শুনতে হবে এবং সম্মান করতে হবে। আমরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে আমাদের প্রতিরোধ জারি রাখবো।

 ওয়াওরানি নেত্রী নেমোনতে নেনকুইমো ,ইকুয়েডর এর উচ্চ আদালত এর বাইরে সংবাদ সম্মেলনে উক্ত বক্তব্য দেন। গত বছরে তিনি তার সম্প্রদায়ের পক্ষে প্রধান বাদী হয়ে তার অঞ্চলের ৫ লাখ একর জমিকে তেল উত্তোলন এর হাত থেকে রক্ষা করেন ।


ওয়ায়োরানি এবং কোফান সম্প্রদায়ের একদল প্রতিনিধি ইকুয়েডর এর উচ্চ আদালতের বিচারপতিদের সাথে একটি সাক্ষাতে অংশগ্রহণ করে। ওয়ায়োরানি এবং কোফান সম্প্রদায় অনুরোধ করে যে আদিবাসীদের মৌলিক অধিকার সম্পর্কিত আদেশটি দেওয়ার আগে যেন আদিবাসীদের বক্তব্য শোনা হয়।

আমাজন ফ্রন্টলাইন এর আইনজীবী মারিয়া এসপিনোজা ইকুয়েডর এর উচ্চ আদালত এর সামনে সংবাদ সম্মেলনে বলেন “এসব জাতিগোষ্ঠীর অধিকার এবং অস্তিত্বে প্রভাব পড়ছে। এখন শুধু ওয়ায়োরানি এবং কোফান সম্প্রদায়ের মামলার পর্যালোচনাই নয়, আদিবাসীদের জনজীবন কে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষার জন্য তাদের পূর্বানুমতি ও সম্মতি দেওয়ার স্বাধীন অধিকার নিয়েও একটি স্পষ্ট ঘোষণা দেওয়ার জন্য উচ্চ আদালতের সুযোগ আছে ।“

সমাবেশ এর সময় পুলিশের পাশে দাঁড়ানো একজন ওয়ায়োরানি সম্প্রদায়ের ব্যক্তি ।

 

ওয়ায়োরানির অগ্রজ হিসেবে আমরা আমাদের জীবনধারণের অধিকার এর দাবি নিয়ে এসেছি। আমাদের আবাসস্থল বিক্রয়ের জন্য নয়

-ওমানকা ইনকুইরি, ওয়ায়োরানির একজন বয়োজ্যেষ্ঠ নেতা (যিনি ওয়ায়োরানিয়ান ভাষায় ‘পেকিনানি’ (Pekinani) নামে ও পরিচিত)। ওয়ায়োরানি জনগোষ্ঠী প্রত্যাশা করে আদিবাসী জাতির  পূর্ববর্তী পরামর্শ এবং আত্মনিয়ন্ত্রণ এর অধিকারগুলোকে ইকুয়েডর এর সংবিধান এবং আন্তর্জাতিক আইন অনুযায়ী নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কোফান জাতিগোষ্ঠীর মামলার সাথে তাদেরটাও গৃহীত হবে।

ওয়ায়োরানি আদিবাসীরা শক্তি ও অনবায়নযোগ্য সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সামনে সম্মিলিত গান গেয়ে অবস্থান জানান দেয়। জনগণের অধিকার ও সীমানার স্বীকৃতিতে সরকারী সহযোগিতা চেয়ে ঐতিহাসিক ওয়ায়োরানি এবং কোফান জাতির আইনী বিজয়লাভ কে উদযাপন করার অংশ হিসেবে তাদের এ অবস্থান।

আমরা এখানে এই প্রথমবার আসিনি। আদালতের আদেশ মেনে চলা হচ্ছে না। আমাদের জনজীবন বিপদগ্রস্থ। আমাদের অঞ্চলকে রক্ষা ও পর্যবেক্ষণ নিয়ে পরিবেশ মন্ত্রণালয় কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। আর চলমান খননকাজ আমাদের অস্তিত্বকে হুমকির সম্মুখীন করে তুলছে।

কোইতোর হেডকোয়ার্টার এ ইকুয়েডরের পরিবেশবিষয়ক উপমন্ত্রীর নিকট সিনানগো সম্প্রদায়ের সভাপতি এবং কোফান নেতা এডিসন লুসিতানতে এই কথা বলেন।

কোইতো সমাবেশ এ পুলিশ সদস্যের পাশে গ্র্যান্ডমাদার উইনা ওমাকা যিনি প্রাজ্ঞ বয়োজ্যেষ্ঠ তথা পেকেনানি হিসেবেও পরিচিত। ইকুইডোরিয়ান সরকারের বিরুদ্ধে মামলায়  তাঁর সম্প্রদায়ের অধিবাসীদের পক্ষে তিনি একজন বাদী ছিলেন।  

 

রাজধানীতে ইকুয়েডর শক্তি ও অনবায়নযোগ্য মন্ত্রনালয়ের উদ্দেশ্যে ঐক্যবদ্ধ বার্তা এবং সতর্কবাণী প্রদানের পর ওয়ায়োরানি এবং কোফান আদিবাসী  সম্প্রদায় নাচ পরিবেশন করে।

“আমরা আমাদের পূর্বপুরুষের ভিটায় উত্তোলন সম্পর্কিত শিল্পকে কখনোই প্রবেশ করতে দেবোনা।  আমাদের ভূখন্ডের উপর আমাদের সিদ্ধান্ত কে রাষ্ট্রের অবশ্যই সম্মান করতে হবে।”

মূল আর্টিকেলঃ https://www.amazonfrontlines.org/chronicles/photo-essay-waorani-kofan-victories-ecuador/

জুমজার্নালে প্রকাশিত লেখাসমূহে তথ্যমূলক ভুল-ভ্রান্তি থেকে যেতে পারে অথবা যেকোন লেখার সাথে আপনার ভিন্নমত থাকতে পারে। আপনার মতামত এবং সঠিক তথ্য দিয়ে আপনিও লিখুন অথবা লেখা পাঠান। লেখা পাঠাতে কিংবা যেকোন ধরনের প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন - jumjournal@gmail.com এই ঠিকানায়।

আরও কিছু লেখা

PriaseChakma

Contributor
Studying LL.B. at University of Dhaka.

Follow PriaseChakma

Leave a Reply