icon

১৬৯০ খ্রিস্টাব্দে প্রকাশিত মুঘল সাম্রাজ্যের মানচিত্র অনুযায়ী ত্রিপুরা রাজ্যের বিশালতার প্রমাণ

Jumjournal

Last updated Mar 7th, 2020 icon 390

উপমহাদেশের ঐতিহাসিক বিবেচনায় মুঘল সাম্রাজ্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায়। এই মুঘল সাম্রাজ্যের ইতিহাসে লুকায়িত আছে তৎকালীন বহু রাজ্য, বহু রাজা-মহারাজা, বহু জাতিগোষ্ঠী ও বহু আচার-সংস্কৃতির ইতিহাস।

১৬৯০ খ্রিস্টাব্দে মুঘল সাম্রাজ্যের দিল্লী দরবার প্রদত্ত মানচিত্রটি প্রকাশ করে। মানচিত্রে দেখা যায়, বর্তমান ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চল ছাড়া প্রায় সব অঞ্চলই মুঘল সাম্রাজ্যে অধিভুক্ত ছিল।

মানচিত্রটি ভালোভাবে লক্ষ্য করুন। মাটির রং দ্বারা মুঘল সাম্রাজ্য বুঝানো হয়েছে আর কালো রঙের দ্বারা এর সীমানা দেখানো হয়েছে। দারুণ বিষয় হচ্ছে, এই মানচিত্রে পার্শ্ববর্তী স্বাধীন রাজ্য হিসেবে ত্রিপুরা রাজ্যকে “Tipora” (লাল বৃত্ত দ্বারা চিহ্নিত) নামে আখ্যায়িত করে স্পষ্ট আকারে তুলে ধরা হয়েছে। প্রদত্ত সীমারেখা থেকে এটা স্পষ্ট যে, ত্রিপুরা রাজ্যটি মুঘল সাম্রাজ্য বহির্ভূত ছিল।

উল্লেখ্য যে, ১৬১৫ খ্রিস্টাব্দে স্পেনীয় নকাশাকার ডিয়েগো দি এস্টরের আঁকা মানচিত্রেও ত্রিপুরা রাজ্যকে “REINO DE TIPORA” নামে আখ্যায়িত ছিল। (বিস্তারিতঃ https://www.facebook.com/tpr.mukul.ark/posts/266217697558639) সম্ভবত সেই নামটি অনুসরণ করেই মুঘল সাম্রাজ্যের মানচিত্রেও পার্শ্ববর্তী রাজ্য হিসেবে ত্রিপুরা রাজ্যকে “Tipora” নামে অভিহিত করা হয়েছে। সম্ভবত যিনি এই মানচিত্র এঁকেছেন, তিনিও হয়তো একজন ইউরোপীয় ছিলেন।

১৬৯০ খ্রিস্টাব্দে অঙ্কিত মুঘল সাম্রাজ্যের এই মানচিত্রটি ত্রিপুরা ইতিহাসে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, এই মানচিত্রে ত্রিপুরা রাজ্যের বিশালতার স্পষ্ট প্রমাণ পাওয়া যায়। চিহ্নিত সীমারেখা থেকে এটা স্পষ্ট যে, সেসময় ত্রিপুরা রাজ্যে বর্তমান মিজোরাম, কাছাড়; বর্তমান মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যের কিছু অংশ এবং বর্তমান বাংলাদেশের চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড, মিরসরাই, ফটিকছড়ি; পার্বত্য চট্টগ্রাম (রাঙ্গামাটি, বান্দরবান, খাগড়াছড়ি), ফেনী, নোয়াখালী, কুমিল্লা, চাঁদপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, হবিগঞ্জ, মৌলভীবাজার প্রভৃতি অঞ্চল অন্তর্ভুক্ত ছিল।

প্রদত্ত মানচিত্রটি যে মুঘল দরবার থেকে প্রকাশ করা হয়েছিল, সে বিষয়ে http://www.aurangzeb.info/2008/06/exhibit-no_5608.html – সূত্রে উল্লেখ আছেঃ-

“This Exhibition mounted by FACT contains and is based on original Akhbarats from Aurangzeb’s Court as preserved at the Rajasthan State Archives, Bikaner, contemporary official records and credible Persian sources”

প্রদত্ত মানচিত্রটি যে “Map of Mughal Empire in A.D. 1690”, সেবিষয়েও এই https://www.quora.com/What-happened-to-the-royal-belongings… – সূত্র মোতাবেক নিশ্চিত হওয়া যায়।

জুমজার্নালে প্রকাশিত লেখাসমূহে তথ্যমূলক ভুল-ভ্রান্তি থেকে যেতে পারে অথবা যেকোন লেখার সাথে আপনার ভিন্নমত থাকতে পারে। আপনার মতামত এবং সঠিক তথ্য দিয়ে আপনিও লিখুন অথবা লেখা পাঠান। লেখা পাঠাতে কিংবা যেকোন ধরনের প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন - jumjournal@gmail.com এই ঠিকানায়।

আরও কিছু লেখা

Jumjournal

Administrator

Follow Jumjournal

Leave a Reply